Home Uncategorized শেষ দিনেও জমজমাট ‘তরুণ উদ্যোক্তা পণ্য মেলা’

শেষ দিনেও জমজমাট ‘তরুণ উদ্যোক্তা পণ্য মেলা’

তরুণ উদ্যোক্তাদের পণ্য মেলার শেষ দিনেও জমজমাট ক্রেতা সমাগম হয়েছে। ঈদকে সামনে রেখে ক্রেতারা তাদের প্রয়োজনীয় পণ্য ও অন্যান্য জিনিস কিনছেন।

সন্ধ্যায় জমকালো আয়োজন ও ফ্যাশন শো’র মাধ্যমে শেষ হবে বাংলাদেশ ইয়ুথ এন্টারপ্রাইজ অ্যাডভাইস এন্ড হেল্পসেন্টারের (বিইয়া) আয়োজিত মেলা।

শনিবার শুরু হওয়া তিনদিন ব্যাপী ‘তরুণ উদ্যোক্তাদের পণ্য মেলার তৃতীয় ও শেষ দিন আজ।সকাল থেকেই ধানমন্ডির ২৭ নম্বরের ওমেনস ভলান্টারি অ্যাসোসিয়েশন (ডব্লিউভিএ) মিলনায়তনে ক্রেতাদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

বাংলাদেশের নানা প্রান্ত থেকে আসা প্রায় ৬০ জন তরুণ উদ্যোক্তা এই মেলায় অংশগ্রহণ করছে। এই মেলায় রয়েছে তরুণ উদ্যোক্তাদের তৈরি খাদ্য, বুটিকস, ফিজিওথেরাপী, হ্যান্ডি ক্র্যাফট, লেদার, হোম আইটেম, মিডিয়া, ইলেক্টনিক্স, জুটপণ্য, কসমেটিক, ই-কমার্স, তথ্যপ্রযুক্তি ও গৃহস্থালী পণ্য ভান্ডার।

সোমবার মেলার শেষ দিনে আগতরা জানান, দেশীয় পোশাকের এমন আয়োজন তাদের মুগ্ধ করেছে।

ধানমন্ডি থেকে আগত জেসমিন জামান উদ্যোক্তা বার্তাকে বলেন, বেশ কিছু ভালো পণ্যের সন্ধান পেয়েছি এ মেলা থেকে, অনেক সময় একই পোশাক বড় বড় শপিং মল থেকে কিনতে গেলে বেশি দাম রাখে। কিন্তু এখানে অনেক সাশ্রয়ী দামে পণ্য গুলো পেয়েছি।

লালবাগ থেকে আসা শারমীন হালদার উদ্যোক্তা বার্তাকে বলেন, শুক্রবারে গ্রামের বাড়ি যাবো। ফেসবুকে মাধ্যমে আপনাদের নিউজ পড়ে এই মেলায় এসেছি, বেশ কিছু পণ্য কিনেছি নিজের ও পরিবারের জন্য যা খুবই সাশ্রয়ী মূল্যে পেয়েছি।

এদিকে মেলায় অংশ নেওয়া উদ্যোক্তারাও পশরা সাজিয়েছেন তাদের নিজেদের বেচা কেনার জন্য।

সারিকা ফ্যাশনের নাসরিন আক্তার এনেছেন কুর্তি ও তাঁতী শাড়ি। সিজিস বুটিকসের জান্নাত সুলতানা রিতা এনেছেন জামদানি শাড়ি, শাড়ি, পাঞ্জাবি ও বাচ্চাদের জন্য জামা।সুকন্যা বুটিকসের সাহিদা পারভীন এনেছেন থ্রী পিস, চাদর, টু পিস ও বাচ্চাদের জামা-কাপড়।

এসবি গিফট শপের মো. সজিব এনেছেন চাবির রিং, ক্যান্ডেল, কাস্টমাইজ মগ, গিফট আইটেম ইত্যাদি।অয়ন ক্রাফটের নাঈমা ইসলাম এনেছেন ফেব্রিক্সের কাপড়, বেবি ড্রেস, লেদারের ব্যাগ ইত্যাদি।

অর্থার নিতাই সরকার পার্থ এনেছেন গৃহস্থালির জন্য মশারি ও বেড শিট।কারুশৈলীর পাপিয়া এনেছেন গহনা, স্ক্রিন প্রিন্টের অনেক আইটেম।রমনীর তামান্না এনেছেন কাঠের মালা, চোকার, হাতের আংটি ইত্যাদি।

আরআর বাজারের আফিয়া আক্তার এনেছেন বাটিক এবং টাঙ্গাইলের শাড়ি, পাঞ্জাবী, ফতুয়া, বেড শিট ইত্যাদি।শিমু কালেকশনের সাহানা আক্তার শিমু এনেছেন চাদর, পর্দা, ফ্রিজের কাভার, কুশন কাভার, শাড়ি , পাঞ্জাবী, থ্রি পিছ ইত্যাদি।

আপনারের ফাহমিদা খান এনেছেন থ্রি পিছ, বাচ্চাদের শার্ট সাথে আছে ডাক্তারি আইটেম। হাবিবা বুটিকসের হামিদা রহমান এনেছেন শাড়ি, থ্রি পিছ, টু পিছ ইত্যাদি।

অহেতুকের ফারহানা বৃষ্টি এনেছেন দেশীয় গহনা নিয়ে কাজ করছেন তিনি সাথে আছে ব্লকের ড্রেস ও হ্যান্ডমেট বেড শিট।ফরিদা সেন্ডিক্রাফটের ফরিদা ইয়াসমিন এনেছেন শাড়ি. থ্রী পিছ ও পাঞ্জাবী।

পিঠার আড্ডার মো.রফিক এনেছেন গায়ে হলুদের বিভিন্ন গহনা, আর নানা ধরনের পিঠা, বিয়ে বাড়ি সাজানোর জন্যও তারা কাজ করছে।

কড়িডটকমের কিশোয়ারা সুলতানা এনেছেন, মনিপুরি শাড়ি, উড়না, স্ক্রিন প্রিন্টের থ্রী পিছ, টাঙ্গাইলের শাড়ি ইত্যাদি। শ্যামল লেদারের মো. মোমিন দেওয়ান এনেছেন ওয়ালেট, বেল্ট, কার্ড হোল্ডার ও জ্যাকেট।

ভারটেক্সে ক্রাফটের সাইফুল ইসলাম এনেছেন জুট প্রোডাক্ট, ব্যাগ, ল্যাপটপ ব্যাগ, শপিং ব্যাগ, স্কুল ব্যাগ ও লেডিস ব্যাগ।সুরাইয়া ক্লোসেটের সুরাইয়া নাজনীন এনেছেন জুয়েলারি, রিং, মালা, গ্লোল্ডেন প্লেটের নানান রকমের গহনা।

সানজিয়া কালেকশনের সানজিয়া রহমান নিয়ে এসেছেন শাড়ি, বাটিক, তাতের নানা রকমের ড্রেসের কালেকশন।লোটাস ওয়াল্ড বিডির ফারহানা ইয়াসমিন এনেছেন হিজাব ও বেড শিটের কালেকশন।

অপ্সরা বুটিকসের মরিউম কবির এনেছেন থ্রি পিছ, শাড়ি ও টু পিছের কালেকশন।মোমো কালেকশনের মমতাজ বেগম মোমো এনেছেন অন পিছ, খেলনা, বেবি আইটেম, ছেলেদের পাঞ্জাবী ও শার্ট।

হ্যান্ডমেড বিডির মো. রিয়াজ এনেছেন তাতের শাড়ি, থ্রী পিছ, চুমকি শাড়ি ও উড়না।পেক্স লেদারের মাসুদ রানা এনেছেন বেল্ট, হ্যান্ড গ্লাভস, মানি ব্যাগ এবং ব্যাগ।

নকশি বিউটি পার্লারের আঁখি আক্তার মিলি এনেছেন জুয়েলারি ও জুটের আকর্ষণীয় ব্যাগ।চিরুনীর রাফিকা হক এনেছেন হোম মেড তেল, যেটা তৈরি করা হয়েছে কালো জিরা, ভাটিকা ইত্যাদি ন্যাচারাল পণ্য দিয়ে।

প্রকৃতি হ্যান্ডি ক্রাফটের লিপি আক্তার এনেছেন জুটের শোপিস, ব্যাগ পার্টস, চাদর, বেড শিট ও থ্রি পিছ। চার বন্ধুর সংগঠন অনন্য শপ এনেছেন অরগানিক ফুড, হলুদের গুড়া, মরিচের গুড়া, মধু, পিঠা ও সরিষার তেল।

সমবায় সমিতি থেকে আসা বিশাখা এনেছেন চিকেন রোল, ছোলা, ডিমের চপ, নুডুলস ও বরইয়ের আচার। কেক ডট কম বিডির সিরাজুম মুনিরা এনেছেন কেক, ডোনাট, ডেজার্ট আইটেম, কফি মুজ ইত্যাদি। বি ল্যান্ড হানির খুসনুরা ইসলাম বনি এনেছেন ন্যাচারাল হানি এবং প্রোসেসিং হানি।

শনিবার সকালে ‘তরুণ উদ্যোক্তাদের পণ্য মেলা’র উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ইয়ুথ এন্টারপ্রাইজ অ্যাডভাইস এন্ড হেল্পসেন্টারের (বিইয়া) প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও এ কে খান ফাউন্ডেশনের ট্রাস্টি সালাউদ্দিন কাশেম খান।

‘তরুণ উদ্যোক্তাদের পণ্য মেলা’র টেলিভিশন ব্রডকাস্ট পার্টনার উদ্যোক্তা চ্যানেল আই , অনলাইন পার্টনার বার্তা বাজার ও উদ্যোক্তা বার্তা, ফটোগ্রাফী পার্টনার কে এম এ তাহের, মেকওভার পার্টনার আদেলা মেকওভার সেলুন, এসএমই অনলাইন মার্কেট পার্টনার ঐক্যডটকমডটবিডি।

হৃদয় সম্রাট, খাদিজা ইসলাম স্বপ্না

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

ইচ্ছে ডানায় উড়ে চলা…

গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলায়। বাবা মা দুইজনই সরকারি চাকরিজীবি ছিলেন। বাবা ডাক্তার মা শিক্ষিকা। দুই ভাই বোনের মধ্যে বড় সে, ছোট ভাই...

অলঙ্কার বাঙালির গল্প

সোনার বালা, রুপোর নাকছাবি, হিরের দুল।ভাবছেন, এতেই আপনি কুল’?সেটাই মস্ত ভুল। কারণ দুনিয়া জোড়া নারীর সোনা-রুপা -হীরার ভালবাসায় ভাগ...

সিএমএসএমই’র ঋণ বিতরণের সীমা আরো বাড়লো

করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া কুটির, অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র ও মাঝারি খাতে (সিএমএসএমই) নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়ার পরও সরকার ঘোষিত ২০ হাজার কোটি টাকার প্রণোদনা...

সৃজনশীলতার মধ্য দিয়েই নিজেকে খুঁজে পান- পারু

ফারহানা ফওজিয়া সুইটি (পারু)। একজন শিক্ষার্থী ও নারী উদ্যোক্তা । নারীদের হাতের কাজের থ্রি পিস,ওয়ান পিস, ও পাঞ্জাবি নিয়ে কাজ করছেন তিনি।