পরিবেশকে প্লাস্টিক মুক্ত করতে উদ্যোক্তা হয়ে উঠা

0
উদ্যোক্তা ফজলুর রাজু

ফজলুর রাজু বড় হয়েছেন যশোরের নাভারণে। চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যোগাযোগ ও সাংবাদিকতায় অনার্স ও মাস্টার্স করার সময় দৈনিক আমাদের সময়, জাগো নিউজ ২৪.কম এ চাকরি করেন। ইংরেজি সংবাদ এজেন্সি ইউনাইটেড নিউজ অব বাংলাদেশ (ইউএনবি), ঢাকা ট্রিবিউনের নিজস্ব প্রতিবেদক ও বাংলা ইনসাইডারের প্রধান বার্তা সম্পাদক হিসেবেও কাজ করেন রাজু।

rajuu

২০১৯ থেকে উদ্যোক্তা হবার ভাবনা আসে। ভাবনাটা আরো আগের সেই ২০১৫ থেকেই। ২০১৫ সাল থেকে পণ্য নিয়ে গবেষণা, বাঁশের ট্রিটমেন্ট প্রোসেস জানতে ইন্ডিয়া ভ্রমণ করলেন। সেখান থেকে আসার পর থেকে তার মনে হলো কারখানা স্থাপন করাটা খুব জরুরী। এরপর কারখানা স্থাপন করলেন ২০১৯ সালে। ভালো একটা পুঁজি ছাড়া কারখানা স্থাপন সম্ভব নয়। ৩০ লাখ টাকা নিয়ে যাত্রা শুরু করলেন। তিনি বাঁশ ও পাট পণ্য নিয়ে কাজ করছেন বর্তমানে। ১৫ ধরনের পণ্য তৈরী হচ্ছে তার প্রতিষ্ঠানে। ১৪ জন কর্মী আছে তার কারখানায়। যেটি যশোরের নাভারণে। অনলাইনে তার পেইজ আছে যার নাম Go Green Bangladesh।

raju3

বাংলাদেশের বাইরে কয়েকটি দেশে স্যাম্পল পাঠানো হয়েছে। আলোচনা চলমান। দেশের ভেতর সারাদেশেই তার পণ্য যায়। এ ব্যাপারে উদ্যোক্তা জানান “পরিবেশ রক্ষার আন্দোলনের অংশ হিসাবে ক্ষতিকর প্লাস্টিকের পণ্যের টেকসই বিকল্প দেওয়ার প্রচেষ্টার অংশ হিসাবে এইসব পণ্য নিয়ে কাজ করা।” ভবিষ্যৎ পরিকল্পনায় তিনি জানান, প্লাস্টিকের বদলে সকলের কাছে পরিবেশবান্ধব পণ্য পৌঁছে দিতেই তার এই উদ্যোগ। বাংলাদেশে যেহেতু বাঁশ ও পাট পর্যাপ্ত পরিমানে পাওয়া যাবে তাই তিনি এই উদ্যোগ শুরু করেন।

তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য তার পরামর্শ হলো নতুন কিছু করার চিন্তা করা। সাথে লেগে থাকার মানসিকতা।এভাবে যদি আগানো যায় তাহলে সাফল্য পাওয়া যায়।

মাসুমা সুমি,
উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here