শাওন-মনিকার চকোলেট ফ্যাক্টরি

0

ব্রাইডাল ফটোগ্রাফি এন্ড থ্রি সিক্সটি ডিগ্রি ইন্টারন্যাশনাল ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠানকে এক  অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেলেন একজন তরুণ উদ্যোক্তা,  হাতে যখন প্রায় ২০০ এসাইনমেন্ট  তরুণ উদ্যোক্তা রিয়াজুল ইসলাম শাওনের ইভেন্ট প্ল্যানিং , ভিজ্যুয়াল এডিটিং, ফটোগ্রাফি  আর ওয়েডিং অনুষ্ঠান নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় যখন পার করছেন শাওন ২০-২৫ জনের টিম নিয়ে ঠিক সেই সময় আঘাত হানলো বিশ্বে  কোভিড নাইনটিন।

চাষ করে আলোর মুখ দেখছেন গোলাম মোস্তফা 31


সারা বিশ্বের লক ডাউনের সাথে থেমে গেলো ৬ মাস স্বাভাবিক সব কর্মকান্ড এবং ব্যবসা দেখলোনা কোন ব্রাইট ব্রাইডাল সেরেমনি প্রায় বছর খানেক। সুপার ফর্মে রান করা একটি ব্যবসা যখন থমকে দাঁড়িয়েছে ৭থেকে ৮ মাসে হাতের জমানো ক্যাশ ক্যাপিটালও শেষ হয়ে আসতে থাকলো। 
এমনিই একটা কথা শোনা যায় যে উদ্যোক্তা যিনি হন তিনি কখনও থেমে থাকতে পারেননা কিংবা উদ্যোক্তার স্বপ্নের দৌড় অনেক লম্বা হয়।  নিজের ছায়ার মত উদ্যোক্তার নিউ নিউ বিজনেস আইডিয়া ঘুরে ফিরে গ্রাস করতে থাকে উদ্যোক্তাকে। 

চাষ করে আলোর মুখ দেখছেন গোলাম মোস্তফা 29


তরুণ উদ্যোক্তার লক্ষ্য কিংবা কর্মস্পৃহা কি নিঃশেষ হতে পারে কোনো আঘাতে ?সব উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে উত্তর আসবে, ” না”।   স্ত্রী নিশাত আঞ্জুম মনিকার সঙ্গে লকডাউনের  এক পড়ন্ত বিকেলে ছাদে চা পান করতেই মাথায় আসে নতুন ব্যাবসার পরিকল্পনা।

চাষ করে আলোর মুখ দেখছেন গোলাম মোস্তফা 30

বানাবেন হোমমেড চকলেট। দেরি না করে শুরু করে দেন অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ফেরেস্তা বাংলাদেশের ফেসবুক পেজ তৈরির কাজ সেই সাথে চকলেট তৈরির খুঁটিনাটি সব প্রশিক্ষণ। শুরুটা আত্মীয়স্বজন আর পরিচিতজনদের মাধ্যমে হলেও উদ্যোক্তা দম্পতি শাওন -মনিকার চকলেট এখন এক পছন্দের জায়গায় চলে এসেছে চকলেট প্রেমীদের কাছে। বিশ্ববাজারে এখনো না গেলেও ক্রেতাদের কাছে তা আন্তর্জাতিক মানের বলেই রিভিউ পাচ্ছেন এই উদ্যোক্তা দম্পতি।

চাষ করে আলোর মুখ দেখছেন গোলাম মোস্তফা 27

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট থেকে চকলেট তৈরির উদ্যোক্তা এমন প্রশ্ন করা হলে রিয়াজুল ইসলাম শাওন, সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলার নামই জীবন। করোনা শুরুর ২ মাসের মধ্যে যখন দেখলাম ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট রিলেটেড ব্যবসার অবস্থা ভালো না , নতুন কিছু করার উদ্যোগ থেকেই বাসায় এ চকলেট তৈরির পরিকল্পনা করি। আমি মনে করি কাজের প্রতি আস্থা থাকলে উদ্যোক্তা হতে টাকাটা জরুরি নয়। কাজকে ভালোবাসলে সফলতা ধরা দিবেই বলে আমার বিশ্বাস।

চাষ করে আলোর মুখ দেখছেন গোলাম মোস্তফা 26


নিশাত আঞ্জুম মনিকা বলেন , কে কি বললো সে দিকে বেশি নজর দিলে উদ্যোক্তা হওয়া সম্ভব না।  কাজ যেটাই হোক সে কাজে সততা থাকলে সফলতা আসবেই।  চকলেট তৈরি শুরুর আগেই বিশ্বাস ছিল সফলতা আসবে ,তবে এত দ্রুত সফল হবো আমরা তা ভাবিনি। আর কোয়ালিটির ব্যাপারে কোন আপোষ আমাদের ছিলনা বলেই হয়তো দ্রুত সফল হতে পেরেছি।

চাষ করে আলোর মুখ দেখছেন গোলাম মোস্তফা 28

বর্তমানে পরিস্থিতি যখন স্বাভাবিক হতে চলেছে তখন উদ্যোক্তার ব্রাইডাল ইভেন্ট ম্যানেজমেন্টেও ব্যাস্ততা বাড়ছে দিন দিন।

মাসুমা শারমীন সুমী
উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here