বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) একটি সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। লবণ শিল্পের উন্নয়নের মাধ্যমে উপকূলীয় অঞ্চলের জনগোষ্টির আত্মকর্মসংস্থান এবং দেশে লবণ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্যে বিসিক বিগত ১৯৬০ সাল থেকে কক্সবাজার এলাকায় কাজ করে আসছে। লবণ শিল্প দেশের সর্ববৃহৎ শ্রম নিবিড় কুটির শিল্প।

গত ২১ এপ্রিল বর্তমান লবণ পরিস্থিতি নিয়ে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বিসিক, লবণ চাষি সমিতি, মিল মালিক সমিতি, ব্যবসায়ী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সুশিল সমাজ ও এনজিও প্রতিনিধির সঙ্গে অনলাইনে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ঢাকা থেকে যোগ দেন বিসিক’র ডিজিএম (সম্প্রসারণ) সরোয়ার হোসেন।

lobonn

সভায় এক লক্ষ মেট্রিক টন লবণ সরকারিভাবে ক্রয়ের প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করা হয়।

কম দামের কারণে চাষিরা লবণ উৎপাদন থেকে বিমুখ হচ্ছে। এই উৎপাদিত লবণ শিল্প বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেছেন চাষিরা।

lobonj

সভায় লবণের জাতীয় চাহিদা নির্ণয়, চাষিদের অর্থঋণ প্রদান, লবণের বাজারমূল্য নির্ধারণ, স্বল্প মূল্যে পলিথিন সরবরাহ এবং মনিটরিং সেল গঠনের দাবি জানিয়েছেন লবণ মিল মালিক ও চাষিরা।

ডেস্ক রিপোর্ট, উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here