রাজশাহীর পর্যটন শিল্পের সফল উদ্যোক্তা ওয়াহিদুল ইসলাম সিয়াম

0
উদ্যোক্তা ওয়াহিদুল ইসলাম সিয়াম

উদ্যোক্তা ওয়াহিদুল ইসলাম সিয়াম, বর্তমানে উত্তরবঙ্গ বিশেষ করে রাজশাহী শহরকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের সাথে জড়িত, ‘বরেন্দ্র রিসোর্ট’ এবং ‘রয়্যাল রাজ হোটেল অ্যান্ড কন্ডোমিনিয়াম’ নামে দুটি উদ্যোগের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন।

২১ একর জমিতে আম বাগান ঘেরা বরেন্দ্র রিসোর্ট হল একটি ইকো-ভিত্তিক পারিবারিক হলিডে হোম। একঘেয়ে এবং কোলাহলপূর্ণ শহুরে জীবন থেকে বিরত থাকার জন্য নিখুঁত বিশ্রামের জায়গা হিসেবে গড়া হয়েছে এটিকে। রাজশাহী শহর থেকে ১১ কিলোমিটার দূরত্বে শিতলাইয়ে বাজার এলাকায় এটির অবস্থান। রিসোর্টটি সবসময় ওপেন থাকে। গ্রীষ্ম এবং শীত এখানে আসার উপযুক্ত সময়। এখানে পারিবারিক প্রোগ্রাম, দিনব্যাপী প্রোগ্রাম এবং কর্পোরেট সংস্থার বিভিন্ন প্রোগ্রামগুলোর ব্যবস্থা রয়েছে। কখনও কখনও তারা অতিথিদের আপ্যায়ন করার জন্য স্থানীয় লোকশিল্পীদেরও আমন্ত্রণ জানিয়ে থাকেন। ২০১৯ সালে তারা রিসোর্ট বাগান থেকে চাষ করা দুই ধরনের মধু (লিচু এবং সরিষা মধু) নিয়ে কাজ শুরু করেছেন।

oishe 1 1

অন্যদিকে, রয়্যাল রাজ হোটেল এন্ড কন্ডোমিনিয়াম একটি চার তারকা হোটেল, গত ১৩ মার্চ ২০২২ আনুষ্ঠানিক ভাবে এটির যাত্রা শুরু হয়। যা রাজশাহীর প্রাণকেন্দ্র রানীবাজার গণকপাড়া এলাকায় অবস্থিত। শাহ মখদুম বিমান বন্দর থেকে ৯ কিলোমিটার এবং রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন এবং বাস স্টেশন থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরত্বে এটির অবস্থান। একটি আন্তর্জাতিক ব্রান্ড সাজনাও তাদের সাথে কাজ করছে।

কিছু কারণে আতিথেয়তায় এই ক্যারিয়ার বেছে নিয়েছেন উদ্যোক্তা সিয়াম। চার বছর আগে যখন তিনি একটি এমএনসি তে কাজ করছিলেন তখন তিনি একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যাতে লোকেদের তার মূল সম্পর্কে জানাতে পারে, তাই ফোকাস ছিল তাদের হোটেল প্রকল্পের মাধ্যমে কন্ডোমিনিয়ামের ধারণা প্রতিষ্ঠা করা যা তারা থাইল্যান্ড থেকে পেয়েছিল। বাংলাদেশের পর্যটন খাত ভারত, থাইল্যান্ড, মরিশাস প্রভৃতি অন্যান্য দেশের মতো বিকাশ লাভ করেনি। সঠিক বিপণনে মনোযোগ না দেওয়ার কারণে বাংলাদেশের ৯০ শতাংশের বেশি মানুষ স্থানীয় পর্যটন সম্পর্কে স্পষ্ট জানে না। উদ্যোক্তা বলেন, প্রতি বছর মানুষ দ্রুত অন্য দেশে যাওয়ার এটিই প্রধান কারণ।

oishe 4

উদ্যোক্তা সিয়াম তার স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর উভয়ই ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি থেকে ব্যবসায় বিভাগে সম্পন্ন করেছেন। তিনি হলসিম বাংলাদেশ লিমিটেডের একজন ইন্টার্ন হিসাবে সিমেন্ট শিল্পের সাথে তার কর্মজীবন শুরু করেন। স্নাতক শেষ করার পর, এক মাসের মধ্যে তিনি লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেডের ব্র্যান্ডিং দলের সাথে কাজ শুরু করেন। সুপারক্রিট সিমেন্টের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতাও রয়েছে তার। ২০১৭ সালে তিনি সিয়াম সিটি সিমেন্ট বাংলাদেশ লিমিটেড নামে একটি থাই সিমেন্ট কোম্পানিতে একজন মার্কেট ইন্টেলিজেন্ট হিসেবে যোগ দেন, যেখানে তিনি ব্যবসার উন্নয়নে ২০১৯ সাল পর্যন্ত কাজ করেন।

oishe 3 1

রাজশাহীর সনামধন্য ব্যবসায়ী মরহুম শহীদুল্লাহ সেলুর পুত্র উদ্যোক্তা ওয়াহিদুল ইসলাম সিয়াম। বর্তমানে বরেন্দ্র রিসোর্ট, রয়্যাল রাজ হোটেল অ্যান্ড কন্ডোমিনিয়াম ছাড়াও বাবার রেখে যাওয়া রড সিমেন্টের ব্যবসা, আসাদুল্লাহ্ অ্যান্ড ব্রাদার্স ফিলিংস্টেশন সহ আরো বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের দেখাশোনা করছেন এই তরুণ উদ্যোক্তা।

তামান্না ইমাম,
উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here