রুট আলফা’র (Rootalpha) মূল দলে রয়েছে ২ জন সহ-প্রতিষ্ঠাতা পরিচয় দাস ও সায়ান দাস। একজন প্রধান জনসংযোগ ও এইচআর অফিসার পূজা তালুকদার এবং একজন প্রধান গবেষণা কর্মকর্তা সব্যসাচী মুখোপাধ্যায়।

কে বলে সাফল্যই কাম্য। বিফলতাও সমানভাবে জরুরি। কেননা বিফলতাই আপনাকে দেয় সফল হওয়ার জেদ। যেমন দিয়েছে এই কাহিনীর নায়ক পরিচয় দাসকে। পরিচয় নামটার সঙ্গে সম্প্রতি পরিচয় হল। জানলাম, কত অল্প বয়সে উদ্যোক্তা হবার পোকা কামড়ে দিয়েছিল তাকে। কলকাতার মেদিনীপুর শহরের ছেলে। লেখাপড়ায় ভালো। এক ডাকে সবাই তার সাফল্যের কথা জানে। কিন্তু তিনি নিজেই জানালেন দু-দুটো বিফলতার কাহিনী। দুটোই স্টার্টআপ।

উদ্যোক্তা পরিচয় দাস বলেন, ‘শুরু হয়েছিল অনেক স্বপ্ন নিয়ে। দুটোতেই দারুণ সাফল্যের সম্ভাবনা ছিল। প্রথমটা ছিল পর্যটন সংক্রান্ত একটি স্টার্টআপ। কিন্তু টিমের লোকদের মধ্যে দৃষ্টিভঙ্গির স্পষ্টতা ছিল না। অর্কেস্ট্রায় বাদ্য যন্ত্রগুলো যেমন এক সুরে না বাঁধা হলে সুর কেটে যায় তেমনি সুর কেটে গিয়েছিল’। পরেরটা খেলার দলের মার্চেন্ডাইজিং সংক্রান্ত একটি স্টার্টআপ। সেটাও চলেনি নানা কারণে। কিন্তু এই না চলাগুলো থেকে প্রতি পদে শিখেছেন পরিচয় দাস। এর পর নতুন করে শুরু করেছেন তার নতুন উদ্যোগ, নতুন উদ্দীপনায়। ধুলো ঝেড়ে মাথা তুলেছেন তিনি।

WhatsApp Image 2021 03 14 at 13.14.57

rootalpha.com (রুটআলফা ডটকম) পরিচয়ের নতুন উদ্যোগের নাম। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র। তাই সেই শেকড়ের কথা ভেবেই উদ্যোক্তার পরিচয় শুরু করেছেন কাজ।

রুটআলফা অনেক ধরণের কাজই করবে আপাতত। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের সব ছাত্র-ছাত্রী যেদিকে তাকিয়ে থাকেন সেটা আর কিছুই নয়, শুধু ক্যাম্পাস ইন্টারভিউ। সব কলেজে ক্যাম্পাস ইন্টারভিউ ঠিক ঠাক হয় না। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ঠিকঠাক সংস্থা আসতেই পারে না সব সরকারি এবং বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে। প্লেসমেন্টের আগের হাজারটা টেনশন থাকে। ইন্টারভিউর টেনশন ছাড়াও পরীক্ষার, সিলেকশনের টেনশন, দিন গড়িয়ে রাত পর্যন্ত অপেক্ষার টেনশন। এখানেই উদ্যোক্তা পরিচয় দাস ঘসে দিচ্ছেন আলাদিনের আশ্চর্য প্রদীপ।

উদ্যোক্তা বলেন, ‘দূর দূরান্ত থেকে আসতেই হবে না নিয়োগকারী সংস্থাকে। গোটা সিলেকশন টেস্ট হোক ক্লাউডে। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মারফত প্রার্থীর সঙ্গে মুখোমুখি কথা বলে নিক সংস্থা। অনলাইনেই খুঁজে নিক তাদের প্রয়োজনীয় কর্মী।

WhatsApp Image 2021 03 14 at 13.14.57 1

উদ্যোগের নাম mycampusing.com। রুট আলফা নিম্নলিখিত 4 টি পদক্ষেপে কাজ করে- CAMPUS READY, TAKE ASSESSMENTS, APPLY FOR JOBS এবং GET HIRED।

আইডিয়াটা শোনামাত্রই এর প্রেমে পড়ে যান পরিচয়ের বন্ধু সায়ন দাস। কোফাইন্ডার হিসাবে সংস্থায় যোগ দেন। তার পর থেকেই কাজে গতি এসেছে। জুলাই ২০১৫ তে শুরু হয়েছে কাজ। একে একে জুড়ে গিয়েছেন আরও কয়েকজন। বড় হয়েছে টিম। পূজা তালুকদার দেখছেন সংস্থার এইচ.আর এবং পাবলিক রিলেশন। সব্যসাচী মুখোপাধ্যায় চিফ রিসার্চ অফিসার।

মাইক্রোসফট বিজস্পার্ক স্টার্টআপ, গুগল ডেভেলপার লঞ্চপ্যাড, পিএন গ্রোথের লিস্টিংএ ইতোমধ্যেই জায়গা পেয়েছে রুট আলফা। শুধু তাই নয়, নেটঅ্যাপ ইনোভেশন অ্যাওয়ার্ড ২০১৬-র জন্যে মনোনীত হয়েছে পরিচয়ের সংস্থা। দেশের সেরা ১০০ টি টেকনোলজি স্টার্টআপের তালিকাতেও জায়গা পেয়েছে।

(তথ্যসূত্র ও ছবি ইন্টারনেট থেকে)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here