ফগার মেশিনে উদ্যোক্তা মোশাররফের ভাগ্যবদল

0
উদ্যোক্তা - মোশাররফ হোসেন

ছোটবেলা থেকেই যন্ত্রপাতি ও মেকানিক্যাল জিনিস পত্রের প্রতি ঝোঁক ছিলো ঢাকার সাভারের মোশাররফ হোসেনের । সেই সাথে স্বপ্ন ছিলো দেশের জন্য কিছু একটা করার। সেই স্বপ্ন ও ইচ্ছা থেকে দেশের মানুষের কল্যাণে দেশীয় প্রযুক্তির মশা মারার ফগার মেশিন উদ্ভাবন করেছেন মোশাররফ হোসেন। এখন তা বানিজ্যিক ভাবে উৎপাদন করে ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন।

পড়াশোনার গণ্ডি এসএসসি পর্যন্ত। তাইবলে এই সীমাবদ্ধ গণ্ডির মধ্য নিজেকে আবদ্ধ রাখার পাত্র নন মোশাররফ। বাংলাদেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা ডেঙ্গু রোগের বাহক এডিস মশা নিরোধনে কম খরচে দেশীয় প্রযুক্তির মিনি ফগার মেশিন কীভাবে উদ্ভাবন করা যায় তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে গবেষণা করেছেন তিনি। অবশেষে মেশিনটি উদ্ভাবন করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন।

Untitled design 8

এই যন্ত্রটি উদ্ভাবনের চিন্তা কীভাবে মাথায় এলো, জানতে চাইলে মোশাররফ হোসেন উদ্যোক্তা বার্তা‘কে বলেন, ‘আমাদের এখানে মশার উপদ্রব খুব বেশি। এই মশা নিরোধনের জন্য আমরা একটা সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে একটা ফগার মেশিন কেনার পরিকল্পনা করি। কিন্তু দাম বেশি হওয়ায় আমাদের পক্ষে ফগার মেশিন কেনা সম্ভব হয়নি। তখন আমি চিন্তা করলাম দেশেই এই মেশিন তৈরি করা যায় কী না। দীর্ঘদিন ধরে চেষ্টা করে আমি নিজেই মেশিনটি তৈরি করে ফেললাম।’

Untitled design 10

মোশাররফের উদ্ভাবিত মিনি ফগার মেশিনের বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘‘এই ফগার মেশিন যা আপনাদের বাড়ি-ঘরের মশা, মাছি, তেলাপোকা এবং শস্য ক্ষেতের যেমন ধান ক্ষেত, বেগুন ক্ষেত, বিভিন্ন সবজি খেতের পোকামাকড় দমনের জন্য খুবই কার্যকারী। এছাড়া গরুর খামার কিংবা বাসা বাড়িতে, হাসপাতাল, স্কুল, কলেজও খুব সহজে ব্যবহার করা যায় । এই মেশিনের কয়েল কোরিয়া খেকে আমদানি করা। খুব সহজেই গ্যাসের বোতলের সাহায্যে চালানো যায়। ১ লিটার মেডিসিনে ৫০ থেকে ৬০ হাজার স্কয়ার ফিট এরিয়া কভার করা সম্ভব। আমাদের মেশিনটি শব্দ মুক্ত ও নিরাপদ এবং সহজেই বহন যোগ্য। মেশিনটির মূল্য মাত্র পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা, যা অন্য বিদেশি মেশিনের চেয়ে অনেক সস্তা। মেশিনটির ফুয়েল ক্যাপাসিটি ২ লিটার। আমরা আমাদের মেশিনটির ১ বছরের ওয়ারেন্টি দিচ্ছি।’’

Untitled design 11

উদ্যোক্তা মোশাররফ ১০ লাখ টাকা মূলধন নিয়ে তিনি এই মেশিনটি বানিজ্যিক ভাবে উৎপাদন শুরু করেন। বর্তমানে ৫ জন কর্মী তার কারখানায় কাজ করছেন। মোশাররফ মাসে ১০০ পিস মিনি ফগার মেশিন তৈরি করতে সক্ষম। যার বাজার মূল্য ৫ লাখ টাকা। ফগার মেশিন ছাড়া তিনি অন্য কিছু উৎপাদন করেন না।

Untitled design 9

পণ্য কীভাবে বাজারজাত করেন জানতে চাইলে উদ্যোক্তা জানান, “ফেসবুকে ‘মশা মারার মিনি ফগার মেশিন’ নামক পেজের মাধ্যমে আমরা মেশিনের অর্ডার নিয়ে থাকি। কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বাংলাদেশের যেকোন প্রান্তে আমরা মেশিনটি পাঠিয়ে থাকি। ফগার মেশিনে ব্যবহারের জন্য মশা মারার কেমিক্যাল, মেডিসিন ও গ্যাস এসএ পরিবহনের মাধ্যমে কন্ডিশনে ঢাকা ও ঢাকার বাইরে ডেলিভারি দিয়ে থাকি। কেউ একটি মেশিন কিনলে এর সাথে পাচ্ছেন ১টি মুন অথবা সান গ্যাস ও ১লিটার মশা মারার এরোসল একদম ফ্রি।’

বিদেশ থেকে আমদানি করা সকল ফগার মেশিনের চেয়ে উদ্যোক্তা মোশাররফের মেশিনটি বেশি শক্তিশালী টেকসই ও সাশ্রয়ী। দেশের মানুষের কল্যাণে মেশিনটি সকলের কাছে পৌঁছে দিতে চান তিনি।

সাইদ হাফিজ
উদ্যোক্তা বার্তা, খুলনা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here