নওগাঁর নাইটিংগেল, সামাজিক উদ্যোক্তা- তাসলিমা ফেরদৌস

কি ঘরে কি বাইরে সকল অদম্য ও উদ্যোমী নারীর পথচলা হোক আরো সহজ ও বাঁধাহীন। হাজারো দায়িত্ব সামলেও যারা কর্মে-অর্জনে অসামান্য তাঁরাই অনুপ্রেরণা হয়ে আছেন, থাকবেন এবং দিক-নির্দেশনা দিবেন আগামীকে। বৈষম্যকে পেছনে ফেলে পরিবর্তনে অগ্রণী সকল নারীকে অভিবাদন জানিয়ে রাজধানীর প্যান প্যাসিফিকে আজ অনুষ্ঠিত হয়ে গেল রাঁধুনী কীর্তিমতী সম্মাননা-২০১৮।

uddoktabarta2
“রাধুনী কীর্তিমতী” সম্মাননা গ্রহণ করছেন উদ্যোক্তা-তাসলিমা ফেরদৌস

অনেক বছরের ত্যাগ, শ্রম ও সংগ্রামের পরেই আসে অর্জন। নারীর সক্ষমতার প্রমান মেলে তার কর্মে। আন্তর্জাতিক নারী দিবসকে সামনে রেখে গত ১৩বছরের ধারাবাহিকতায় এবছরেও সারা বাংলাদেশ থেকে স্কয়ার ফুড এন্ড বেভারেজ লিমিটেড নির্বাচন করেছে চারটি ভিন্ন ভিন্ন ক্যাটাগরিতে চার কীর্তিমতীকে। এ বছর কীর্তিমতী হিতৈষী হিসেবে সমাজ উন্নয়নে সম্মাননা গ্রহণ করেন সফল নারী উদ্যোক্তা তাসলিমা ফেরদৌস। কীর্তিমতী উদ্যোক্তা হিসেবে এবছর সম্মাননা গ্রহন করেন কোহিনূর ইয়াসমিন। কীর্তিমতী সাংবাদিক হিসেবে পুরস্কার গ্রহন করেন রোজী ফেরদৌস, সিনিয়র সাব এডিটর; দৈনিক যুগান্তর। কীর্তিমতী ক্রীড়াবিদ হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক সালমা খাতূনের পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করেন মা ফরিদা বেগম।

উদ্যোক্তা ক্যাটাগরিতে সম্মানিত কীর্তিমতী উদ্যোক্তা কোহিনূর ইয়াসমিন একান্ত উদ্যোগে নিজের মেধা, শ্রম ও দেশবোধকে সাথে নিয়ে তৃণমূলের ১৮হাজার কর্মীর কর্মসংস্থান গড়েছেন । নিজ প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের মাঝে নিরলস পরিশ্রমের দর্শনে তিনি বিশ্বাস করেন নারীর দুই হাত একটা মেশিন। আজ তাঁর এই অর্জন তিনি উৎসর্গ করেন সকল বাঙালী নারী উদ্যোক্তা ও কর্মীদের।

uddoktabarta1
“রাধুনী কীর্তিমতী” সম্মাননা পেলেন যারা

কীর্তিমতী হিতৈষী, মানবিক নারী উদ্যোক্তা তাসলিমা ফেরদৌস প্রয়াস জানান তাঁর ছোট্ট জেলা শহর থেকেই মানবকল্যানে কাজ করার মত এক ঝাঁক নিবেদিত প্রাণ সৈনিক গড়ে তোলার। যারা হাসিমুখ ছড়িয়ে দেবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে, গড়বে সমতা ও মানবতার এক অনন্য বাংলাদেশ। উল্লেখ্য, ইতোপূর্বে উদ্যোক্তা বার্তায় প্রকাশিত ধারাবাহিক ৪পর্বে সংবাদে উদ্যোক্তা তাসলিমা ফেরদৌস পরিচিতি পান “নওগাঁর নাইটিংগেল” হিসেবে।

একটি বিচক্ষণ নির্বাচন প্যানেল একটি দীর্ঘসময় বিচার বিশ্লেষণ ও পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে সারাদেশ থেকে নির্বাচন করেন এই চার কীর্তিমতীকে। জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক নারী দিবসের এবছরের প্রতিপাদ্য “ব্যালান্স ফর বেটার: ভালোর জন্য সমতা” প্রেক্ষাপটে স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্কয়ার ফ্যাশনস লিমিটেডের পরিচালক আনিকা চৌধুরী। তিনি চার কীর্তিমতীকে অভিনন্দন জানিয়ে তাদের এই সাফল্য ভবিষ্যতের আরো কীর্তিমতী তৈরীতে প্রেরণা যোগাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। রাধুনী কীর্তিময় সম্মাননা প্রাপ্তদের হাতে সম্মাননা স্মারক ক্রেস্ট ও চেক তুলে দেন গাজী আশরাফ হোসেন লিপু, আনিকা চৌধুরী, সাবিলা ইনুন এবং তাসলিমা মিজি।

 

 

সাদিয়া সূচনা
ছবি- বিপ্লব আহসান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here