থিমেটিক ডিজাইনে শাড়িতে রশ্নির খাঁচা’র বাজিমাত

0
উদ্যোক্তা শাহনাজ রশ্মি

জনপ্রিয় উপন্যাস লীলাবতী বাউল মোটিভ, স্টোরি নাইট,ফানুস, লজ্জাবতী লতা,বাগানবিলাস, পূর্ণিমা ইত্যাদি সহ অসংখ্য থিমেটিক ডিজাইনের শাড়ি তৈরি করে বাজিমাত করছেন রাজশাহীর রশ্নি।

উদ্যোক্তা শাহনাজ রশ্মির প্রতিষ্ঠান খাঁচাতে শাড়ির পাশাপাশি পাঞ্জাবি, হ্যান্ডপেইন্ট অর্নামেন্টস, ড্রিম কেচার, কূর্তি, টপস, ক্যানভাস, ক্রাফটস সহ ২০০ ক্যাটাগরির পণ্য রয়েছে ।

শুরুর কথা জানতে চাইলে তিনি উদ্যোক্তা বার্তাকে বলেন, ‘মা সবসময় চাইতেন মেয়ে আমার পড়াশোনার পাশাপাশি এক্সট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটিসেও সমান ভাবে পারদর্শী হবে।তাই স্কুলে ভর্তির আগেই আমায় আর্টের স্কুলে ভর্তি করিয়েছিলেন। আর সেখান থেকেই অন্তরে রংতুলি গেঁথে যায়। এরপর ৩৫০ টাকা পুঁজি নিয়ে কাজ শুরু করি।’

স্কুল কলেজ শেষ করে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি সাহিত্য ভর্তি হলাম।তারপর থেকে ক্যাম্পাসের বৈশাখ মেলা,ফাগুন মেলাতে অংশ নিতে শুরু করি এবং শাড়ি, জুয়েলরি, ক্যানভাস ইত্যাদি হতে ব্যাপক শাড়া পেতে থাকি।এরপরে ২০১৯ তিনজন সহযোদ্ধা নিয়ে কারখানা স্থাপনের মধ্যে দিয়ে অফিসিয়ালি যাত্রা শুরু করে খাঁচা।

2 27

প্রতিদিন ১১৩ টি তাঁতে তৈরি হচ্ছে খাঁচার শাড়ি। তাঁত এবং প্রোডাকশন নিয়ে নিয়মিত তিনটি জেলা ভিজিট করেন আত্মবিশ্বাসী এই তরুণী। কাজের পেছনে দৈনিক ১৪/১৫ ঘন্টা সময় দেন রশ্নি। বর্তমানে খাঁচাতে ৫৯৮ টি মোটিভের শাড়ি রয়েছে। যদিও প্রতিদিন এর সংখ্যা বেড়েই চলেছে কেননা খাঁচার প্রতিটি পোশাকই তৈরি হয় কোন না কোন থিম কে কেন্দ্র করে।

ফেব্রিক্স কোম্পানির এক্রোলিকের ওপর সার্টিফিকেশন কোর্স এবং বিডা থেকে প্রশিক্ষণ নেন উদ্যোক্তা শাহনাজ রশ্মি। এবং তরুণ উদ্যোক্তা মেলা, নৈস্বর্গ মেলা, ক্যাম্পাস ভিত্তিক বৈশাখ মেলা, ফাগুন মেলাসহ অসংখ্য মেলায় অংশ নিয়ে বেস্ট সেলারের পুরষ্কার জিতেন এই উদ্যোক্তা।

3 20

সফল উদ্যোক্তা হতে হলে পরিবারের সহযোগিতা কতটা গুরুত্বপূর্ণ বলে আপনি মনে করেন? – এমন প্রশ্নের জবাবে রশ্নি বলেন প্রতিটি উদ্যোক্তার সফল হওয়ার মূলমন্ত্র শ্রম, ধৈর্য এবং তীব্র ইচ্ছা। এগুলোর সাথে যদি পরিবারের সাপোর্ট যোগ হয় তাহলে সাহস আরো বেড়ে যায়। আমার বাবা একটা সময় আমার এ কাজ পছন্দ করতেন না।তিনি বলতেন কাপড় বেচে খাবে তো লেখাপড়া কেন করলে। ঐসময় টা আমি কাজ বন্ধ করে না দিলেও বাবার কথা বারবার ভাবিয়ে তুলতো আমায়। আজ যখন বাবা বলে ‘তোর প্রতিষ্ঠানে কাউকে কাজ দিতে পারবি’ তখন কাজের প্রতি দায়িত্ব বহুগুণে বেড়ে যায়। তাই সফলতার পেছনে পরিবারের সহযোগিতা আমার কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ।

বর্তমানে রাজশাহী এবং ঢাকা তে খাঁচা’র ২টি শোরুম রয়েছে। যেখানে শাহনাজ রশ্মির ৫০ জন সহযোদ্ধা রয়েছেন। অন্তরে গেঁথে যাওয়া সেদিনের সেই রংতুলি ৩৫০ টাকায় শুরু করে আজ সফল ভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। বেকার বসে না থেকে সকলকে উদ্যোক্তা হওয়ার আহবান জানান, উদ্যোক্তা শাহনাজ রশ্মি।

তামান্না ইমাম
উদ্যোক্তা বার্তা, রাজশাহী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here