কোনো প্রকার অনুদান নয়,নিজ অর্থেই চলবে শিহরন

0

উদ্যোক্তা সাইফুল ইসলাম পাটজাত দ্রব্য নিয়ে উদ্যোক্তা জীবন শুরু করেন ২০১৬ সালে। পাটের তৈরি নানা ধরনের ব্যাগ এবং শিশুদের জন্য খেলনা ক্রেতাদের নিকট অত্যন্ত সুলভমূল্যে পৌঁছে দেবার লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে উদ্যোক্তার ভারটেক্স ক্রাফট।

2 24

উদ্যোক্তার পাশাপাশি একজন সমাজকর্মী হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিতে বেশ স্বাচ্ছন্দবোধ করেন সামাজিক উদ্যোক্তা সাইফুল ইসলাম। “শিশুর হাসি রাখিব নির্মল”-এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২০১৪ সাল থেকে শিহরন নামক একটি সংগঠন চালু করেন। প্রতিটি শিশুর নিরাপদ ভবিষ্যতের জন্য সংগঠনটি কাজ করে যাচ্ছে। শিশুদের মুখে হাসি ফোটাবার লক্ষ্যে শিহরন প্রতিবছর ঈদ উৎসব, পিঠা উৎসব, শিশুদের নিয়ে বিভিন্ন আনন্দ আয়োজন, বিজয় উৎসব, বন্যার্তদের ত্রাণ বিতরণসহ বঞ্চিত শিশুদের পরিবারকে স্বাবলম্বি করার জন্য নিয়মিত কাজ করে যাচ্ছে।

3 23

সামাজিক উদ্যোক্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, “ব্যাক্তি জীবনে আমার শিশুকাল ছিল বঞ্চিত শিশুদের মতই। যেহেতু আমিও তাদেরই একজন তাই আমি দায়বদ্ধ শিশুদের জন্য ভালো কিছু করার।তাদের মুখে হাসি ফোঁটাতেই মূলত আমার শিশুদের নিয়ে কাজ করা “

সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে সবাই যদি নিজ নিজ অবস্থান থেকে সমাজের জন্য ভাল কিছু করতে পারে তাহলে বাংলাদেশ হবে আরো সুন্দর – এমনটাই মনে করেন উদ্যোক্তা সাইফুল ইসলাম।

4 12

“শিহরন” নিয়ে ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানতে চাইলে উদ্যোক্তা বার্তাকে জানান, “ভবিষ্যতে শিহরন একটি স্বয়ং সম্পূর্ণ এনজিও হবে। কোনো প্রকার অনুদান নয়, নিজ অর্থেই চলবে শিহরন এবং অধিকার বঞ্চিত শিশুদের জন্য বিনামূল্যে শিক্ষাব্যবস্থা চালু করতে চাই “

সেতু ইসরাত
উদ্যোক্তাবার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here