কেমন গেল ফুল ব্যবসায়ীদের ফেব্রুয়ারি মাস

0

ছোট্ট মেয়ে রাবেয়া হঠাৎ ডান পাশ থেকে এসে হাতের ভেতরে দিয়ে দিলো কয়েকটা লাল গোলাপ। বললো, “শহীদ মিনারে দিয়েন।” আমিও অবশ্য তখন টিএসসিতে দাঁড়িয়ে চা খেতে খেতে সেদিকে যাবারই প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। তাই, ওর গোলাপটা নিয়েই পথ ধরলাম ভাষার মাসে শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে।

এমন কতশত রাবেয়া শুধুমাত্র টিএসসিতেই আজ ফুল বিক্রি করছে। বছরের এই বিশেষ মাসকে কেন্দ্র করে তারা হয়ে উঠেছে অস্থায়ী ক্ষুদ্র ফুল ব্যবসায়ী। সারা দেশেই ছড়িয়ে আছে হাজার হাজার স্থায়ী-অস্থায়ী ফুল ব্যবসায়ী। বছর ঘুরে ফেব্রুয়ারি মাস এলেই যেন তাদের মুখে ফুটে ওঠে হাসি।

ফেব্রুয়ারি মাসটা যেন বিভিন্ন দিবসে মোড়ানো একটা মাস। শুরু হয় ৭ই ফেব্রুয়ারি ‘রোজ ডে’ দিয়ে আর ইতি টানে ২১শে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের মধ্য দিয়ে। প্রতিটি দিবসে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে ফুলের চাহিদা।

shafi 1

২১শে ফেব্রুয়ারির আগের রাত থেকেই রমরমা বাংলাদেশের ফুল ব্যবসার হৃদস্পন্দন শাহবাগের পাইকারি বাজার। কেউ কেউ অর্ডার দিচ্ছে, কেউবা অর্ডারের ফুল সংগ্রহ করতে এসেছে। উদ্দেশ্য একটাই, ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা। রঙবেরঙের বাহারী ধরণের ফুলে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের তোড়া সাজায় সবাই। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এসেছে হলুদ গাঁদা, রজনীগন্ধা, জারবেরা, চন্দ্রমল্লিকা, লাল ও সাদা গোলাপ, বেলি, কামিনী, সূর্যমুখী, গ্লাডিওলাস সহ আরও অসংখ্য ফুল।

ককশিটের ফ্রেমে রিং আকারে সাজানো ফুল দিয়েই মূলত শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানায় সর্বস্তরের মানুষ। সাথে ফুলের তোড়া কিংবা ডালি ফুল তো আছেই দোকানে সাজানো। শাহবাগের ফুল ব্যবসায়ীরা বলছেন, এবারে ফুলের দাম বেশি থাকলেও ফুলের বিক্রি বেড়েছে। ককশিটের ফ্রেমে রিং আকারে ফুলে সাজানো ডালি দিয়েই মূলত শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানায় মানুষ। আকার ভেদে ১হাজার টাকা থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত বিক্রি হয়েছে প্রতিটি ফুলের ডালি।

shafi 2

শাহবাগের বটতলা ক্ষুদ্র ফুল ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির উপদেষ্টা লোকমান হোসেন। তার নিজেরও একটি ফুলের দোকান আছে। নাম অনন্যা পুষ্প বিতান। উদ্যোক্তা বার্তাকে তিনি বলেন, “২১শে ফেব্রুয়ারিকে কেন্দ্র করে শুধু শাহবাগেই পাইকারি ও খুচরা ফুল বিক্রি হয়েছে প্রায় ১৫-১৬ কোটি টাকার। সব মিলিয়ে ফেব্রুয়ারি মাস শেষে ব্যবসায়ীরা হাসি মুখে ব্যবসার হাল ধরতে সক্ষম হবে আবার।”

এভাবেই বাঙালির পার্বনে-আয়োজনে হাসি মুখের রসদ যোগান দিয়ে যাচ্ছে এদেশেরই ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীরা।

মশিউর শাফী,
ডেস্ক রিপোর্ট,
উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here