৪ হাজার টাকায় শুরু করে সফল উদ্যোক্তা হাবিবা সুলতানা

0
উদ্যোক্তা হাবিবা সুলতানা

একসময় ঢাকার আইসিডিডিআরবি-তে চাকরি করতেন হাবিবা সুলতানা। একরকম ভালোই চলছিলো জীবন। কিন্তু নানা কারণে চাকরিটা তার বেশি দিন করা হয়নি। এরপর করোনায় স্বামীও চাকরি হারালেন। দুজনই তখন ঘরবন্দী হয়ে পড়েন। এক অনিশ্চিত অন্ধকারে ছেয়ে গেলো জীবন। কিন্তু হাল ছাড়ার মানুষ নন হাবিবা। যেহেতু তিনি ছোটবেলা থেকেই রান্না করতে ভালোবাসতেন, তাই রান্না নিয়ে কাজ করার সিদ্ধান্ত নিলেন। ২০২১ সালে শুরু হলো তার উদ্যোক্তা জীবন।

মায়ের কাছ থেকে চার হাজার টাকা ধার করে এক বুক স্বপ্ন নিয়ে কাজ শুরু করলেন। প্ররিশ্রম আর ধৈর্য যে কখনো বৃথা যায় না, তার প্রমাণ পেলে তিনি। মানুষকে স্বাস্থ্যকর খাবার পৌঁছে দিতে তিনি হোমমেড ফুড নিয়ে কাজ করছেন। এর মধ্যে রয়েছে বাংলা, চাইনিজ, ফ্রোজেনসহ নানা ধরনের খাবার। রান্নার কাজ তিনি নিজেই করেন। এ কাজে সাহায্য করার জন্য একজন কর্মী আছে তার।

hafiz 07 1

উদ্যোক্তা হাবিবার হোম কিচেন ফেইসবুক পেজের নাম ‘হাবিবা’স কিচেন’। তিনি তার খাবার পুরো ঢাকা শহরে সরবরাহ করে থাকেন। ক্রেতাদের কাছ থেকে আশানুরূপ সাড়া পেয়েছেন তিনি। ভবিষ্যতে তিনি বড় একটা ক্যাটারিং সিস্টেম দাঁড় করতে চান।

উদ্যোগের বর্তমান সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে উদ্যোক্তা বার্তাকে হাবিবা বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, অনেক ভালো। একজন উদ্যোক্তা হতে পেরে অনেক আনন্দিত। নিজের কাজের প্রতি আগ্রহ আরও বাড়ছে। আমার উদ্যোক্তা হওয়ার ক্ষেত্রে আমার হাজবেন্ডের অবদান সবচেয়ে বেশি’।

hafiz 07 2

উদ্যোক্তা হাবিবা সুলতানার জন্ম ও বেড়ে ওঠা বাগেরহাট জেলার কচুয়া থানার ট্যাংরাখালি গ্রামে। তিন ভাই-বোনের মধ্যে সবার বড় হাবিবা পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত গ্রামের প্রাইমারি স্কুলে পড়েছেন। মাধ্যমিক পাশ করেছেন সিএস উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে এবং এইচএসসি কচুয়া ডিগ্রি কলেজ থেকে। তিনি ঢাকার সরকারি বাংলা কলেজ থেকে অনার্স করেছেন।

সাইদ হাফিজ
খুলনা
,উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here