Advertisement

দেশের সিএমএসএমই খাতের উদ্যোক্তাদের সহজ শর্তে ঋণপ্রাপ্তি নিশ্চিতের লক্ষ্যে একটি বিশেষ ব্যাংকের চাচ্ছে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)। ইতোমধ্যে একটি ব্যাংক গঠনের অনুমতি চেয়ে শিল্প মন্ত্রণালয়ে আবেদনও করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিসিক চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) মোশতাক হাসান উদ্যোক্তা বার্তাকে বলেন, ‘সিএমএসএমই উদ্যোক্তারা সহজে ব্যাংক থেকে ঋণ পান না। তারা চড়া সুদে বিভিন্ন এনজিও ও ব্যক্তির কাছ থেকে ঋণ নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করেন। ফলে টিকে থাকা তাদের জন্য কঠিন হয়ে পড়ে।’

‘ব্যাংক চালানোর মতো শতভাগ সক্ষমতা বিসিকের আছে। ব্যাংক হলে দেশে কোটি কোটি উদ্যোক্তা তৈরি হবে।’

‘ব্যাংকটি যদি আমরা করতে পারি, তা হলে প্রতি বছর যে ২০ হাজার উদ্যোক্তাকে আমরা প্রশিক্ষণ দেই, তারা সহজে ঋণ পাবেন। তারা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা হবেন। এতে রাষ্ট্র ঘুরে দাঁড়াবে। উন্নত দেশ গঠনে এর কোনো বিকল্প নেই।’

Advertisement

বিসিক চেয়ারম্যান বলেন, ‘‘ছোট উদ্যোক্তা তৈরি এবং তাদের টিকিয়ে রাখতে ব্যাংক দরকার। বিসিকের তো ব্যাংক চালানোর সক্ষমতা রয়েছে। বর্তমানে এখানে যে ঋণ প্রদান কর্মসূচি রয়েছে, সেখানে ঋণ আদায় প্রচলিত ব্যাংকের চেয়ে অনেক ভালো। বিসিকের ঋণ আদায়ের হার ৯৩ শতাংশের বেশি, যা দেশের অন্য যেকোনো ব্যাংকের চেয়ে ভালো।’’

দেশের শিল্প খাতের বিকাশে মাত্র ২০ কোটি টাকার তহবিল দিয়ে ২০১৬ সালের মে থেকে ‘বিনিত’ ঋণ কর্মসূচি চালু করে বিসিক। কর্মকর্তারা অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে ঋণ প্রদান কর্মসূচি চালিয়ে আসছেন। আমরা সরকারের কাছে একটি ব্যাংক চেয়ে আবেদন করেছি। যে ব্যাংকটি শুধু এসএমই খাত নিয়ে কাজ করবে— জানান মোশতাক হাসান।

জানা যায়, বিসিকের নিজস্ব তহবিল (বিনিত) থেকে ঋণ কর্মসূচির আওতায় ২০২০-২১ অর্থবছরে ১৪ কোটি ৮০ লাখ টাকা ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্র নির্ধারণ করা হয়। এর বিপরীতে চলতি অর্থবছরের আগস্ট পর্যন্ত বিসিকের ৭৮টি শিল্প ইউনিটে প্রায় এক কোটি টাকা বিতরণ হয়েছে। সেই হিসাবে ঋণ বিতরণের হার মাত্র ৭ শতাংশ। চলতি অর্থবছরের আদায়যোগ্য এক কোটি ৭৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকার বিপরীতে আদায় হয়েছে এক কোটি ১১ লাখ টাকা। ঋণ আদায়ের হার ৬৩ শতাংশ।

‘বিনিত’ ঋণ কার্যক্রমের শুরু থেকে চলতি বছরের আগস্ট পর্যন্ত ৪২ কোটি ২৮ লাখ টাকার ঋণ বিতরণ করা হয়। আগস্ট পর্যন্ত আদায় হয়েছে ২৭ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। সেই হিসাবে ঋণ আদায়ের হার ৯৩ শতাংশ। ‘বিনিত’ ঋণের মাধ্যমে বিসিকের শিল্পনগরীর তিন হাজার ৭১৬টি ইউনিটকে ঋণ সহয়তা প্রদান করেছে।

ডেস্ক রিপোর্ট, উদ্যোক্তা বার্তা

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here