রাজধানীর মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘর মিলনায়তনে আজ অনুষ্ঠিত হলো বি’ইয়া আয়োজিত প্রজেক্ট লার্নিং শেয়ারিং ও শীর্ষ দশ তরুণ উদ্যোক্তা এ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠান ২০১৯। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মো: আতিকুল ইসলাম, মেয়র ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থত ছিলেন জনাব গোকুল কৃষ্ণ ঘোষ, পরিচালক, এনজিও বিষয়ক ব্যুরো। বি’ইয়ার প্রতিষ্ঠাতা, চেয়ারপার্সন জনাব আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানটিতে আরও উপস্থিত ছিলেন বি’ইয়ার নির্বাহী পরিচালক জনাব আশফাহ হক, বোর্ড মেম্বার জনাব ওবায়দুর রব, প্রফেসর সৈয়দ ফকরুল হাসান মুরাদ, জনাব আহমাদুল হক, জনাব শাহারিয়ার সাদাত।

IMG 20191127 WA0014বি’ইয়া’র তরুণ উদ্যোক্তাদের নাট্যাভিনয়ের মধ্য দিয়ে বেলা ১১ টায় অনুষ্ঠানের শুরু হয়। স্বাগত বক্তব্যে বি’ইয়া’র নির্বাহী পরিচালক জনাব আশফাহ হক বলেন, আমরা চাকরি প্রার্থীদেরকে চাকরিদাতায় পরিণত করতে বদ্ধ পরিকর। সেই জন্য ১৮ থেকে ৩৫ বছরের তরুণ নারী-পুরুষকে বি’ইয়া উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য প্রশিক্ষণ, মেন্টরিং সহযোগিতা প্রদান করছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জনাব গোকুল কৃষ্ণ ঘোষ বলেন, এনজিও বিষয়ক ব্যুরো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যলয়ের অন্তর্ভুক্ত হিসেবে আমরা উদ্যোক্তা উন্নয়নের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব প্রদান করছি। তরুণ উদ্যোক্তাদের যেকোনো সমস্যায় আমরা তাদের পাশে আছি।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জনাব মো: আতিকুল ইসলাম ৬ জন তরুণকে সম্ভাবনাময়ী উদ্যোক্তা- উম্মে তাহমিনা কবির, মোঃ সজীব, ফরিদা ইয়াসমিন, আঁখি আকতার মিলি, মাকসুদা খাতুন, ড চিং চিং এবং দশজন তরুণ উদ্যোক্তাকে – উম্মে শায়লা রুমকি, মোঃ ওয়াহাব খান, মাসুদ রানা, কানিজ ফাতেমা, আশিকুজ্জামান, আইরিন আকতার, নাসিরুদ্দিন পাটোয়ারী, এস আই মমিন, সাইফুল ইসলাম,এবং একইসাথে আলাউদ্দিন সোহেল ও নিতাই সরকার কে শীর্ষ তরুণ উদ্যোক্তা এ্যাওয়ার্ড ২০১৯ এর ক্রেষ্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করেন

IMG 20191127 WA0015

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জনাব মো: আতিকুল ইসলাম বলেন, অভিনন্দন জানাই সকল মেন্টরদেরকে যারা বি’ইয়ার সাথে উদ্যোক্তা উন্নয়নে কাজ করছেন। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে আমার দিক থেকে তরুণ উদ্যোক্তা ও মেন্টরদের উন্নয়নে যতটুকু সহযোগিতা করা যেতে পারে তা আমি সর্বাত্নকভাবে করবো। আমি বেশ কিছু উদ্যোগ গ্রহণ করতে যাচ্ছি, যেখানে উদ্যোক্তাদের জন্য ব্যবস্থা থাকবে। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একজন উদ্যোক্তাবান্ধব নেত্রী। তিনি চান তরুণরা চাকরির প্রত্যাশায় না থেকে উদ্যোগ গ্রহণ এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি করুক। এ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত উদ্যোক্তাদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান।

লাইটক্যাসেল পার্টনারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব ইভদাদ আহমেদ গত ৪ বছরে বি’ইয়ার প্রকল্পের অগ্রগতি, নতুন নতুন উদ্যোগ গ্রহণে বি’ইয়ার সহযোগিতা এবং মেন্টরিং এর সফলতা উপস্থাপন করেন।

সবশেষে বি’ইয়া’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপার্সন জনাব আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি, বি’ইয়ার তরুণ উদ্যোক্তা, মেন্টর ও কর্মকর্তা, ওয়াইবিআই, কমিক রিলিফ ও অন্যান্য উন্নয়ন  সহযোগীদেরকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
পুরো অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বি’ইয়ার প্রোগ্রাম ম্যানেজার জনাব মেহেদী হাসান কিংশুক।

ডেস্ক রিপো, উদ্দোক্তা বার্তা   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here