এসএমই নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বাজেট ভাবনা শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান

৩০ এপ্রিল, মঙ্গলবার, সকাল ১১.০০ টায় ঢাকা ক্লাবে এসএমই নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বাজেট ভাবনা শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ফাউন্ডেশন (এসএমই ফাউন্ডেশন) ও এসোসিয়েশন অব ফ্যাশন ডিজাইনার্স অব বাংলাদেশ (এএফডিবি) যৌথভাবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আলোচনায় নারী উদ্যোক্তাদের শিল্প ব্যবসা শুরুর পরবর্তী পাঁচ ব্যবসা বিকাশে সহায়ক পরিবেশ তৈরি এবং টেকসই শিল্পয়ানের লক্ষ্যে আসন্ন জাতীয় বাজেটে অন্তর্ভূক্তির জন্য ৯টি প্রস্তাব রাখেন।

Uddoktabarta2 2
অনুষ্ঠানে উপস্থিত নারী উদ্যোক্তাবৃন্দ

(১) নারী উদ্যোক্তাদের শিল্প ব্যবসা শুরুর পরবর্তী পাঁচ বৎসরের জন্য মূসক ও আয়কর অবকাশের সুযোগ নিশ্চিত করার জন্য বাজেটে আইনী ব্যবস্থা করা। (২) রপ্তানিতে নিয়োজিত নারী উদ্যোক্তাদের রপ্তানিমূল্যের উপর প্রযোজ্য অগ্রিম আয়কর অব্যাহতি দেওয়া। (৩) হস্তশিল্প প্রধানত নারী উদ্যোক্তাদের শিল্প। হস্তশিল্প রপ্তানীর বিপরীতে আয়কর মওকুফ সুবিধা দেয়া হয় এবং তা ৩০ জুন, ২০১৯ পর্যন্ত বলবৎ আছে। এই সুবিধা ২০২৫ খ্রিঃ পর্যন্ত বর্ধিত করা। (৪) মূল্য সংযোজন কর আইন, ২০১২ তে একটি নির্দিষ্ট টার্ণওভার পর্যন্ত মূসক মওকুফ সুবিধা আছে। নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ৬০,০০,০০০ (ষাট লক্ষ্য) টাকা টার্ণওভার পর্যন্ত মুসক মওকুফ করা। (৫) বর্তমানে বিদ্যমান টার্ণওভার কর সুবিধা, বিশেষতঃ নারী উদ্যোক্তাদের জন্য, ১৫০,০০,০০০/- (দেড়কোটি টাকা) পর্যন্ত বর্ধিত করা এবং (মূসকের) টার্ণওভার করের হার ৩% অব্যাহত রাখা। (৬) ক্রেতা শিল্প প্রতিষ্ঠান হলে তারা যেন পরিশোধিত এই টার্ণওভার কর রেয়াত নিতে পারে আইনে তাঁর সুস্পষ্ট বিধান রাখা। (৭) ক্ষুদ্র বিশেষতঃ নারী উদ্যোক্তা পরিচালিত শিল্প কয়ার ফাইবার (নারিকেলের ছোবড়ার তন্তু) ব্যবহার করে কয়ার রোপ, নেট ফেল্ট, কালিং ম্যাট, পিট পট, নেষ্ট ইত্যাদি তৈরি করে, বাজারজাত করে এবং রপ্তানি করে। দেশে যথেষ্ট কয়ার ফাইবার (নারিকেল ছোবড়ার তন্তু) পাওয়া যায় না বলে আমদানি করতে হয়। কয়ার আমদানির উপর ৫% শুল্ক, ১৫% ভ্যাট, ৫% এআইটি প্রযোজ্য। কয়ার ফাইবার আমদানীর উপর প্রযোজ্য ৫% আমদানি শুল্ক, ১৫% ভ্যাট, ৫% এআইটি সম্পূর্ণ প্রত্যাহার করে তুলার সমপর্যায়ে আনা। (৮) হস্তশিল্পজাত পণ্যের কাঁচামাল সহজলভ্য করার জন্য দেশে বাঁশ, বেত, নারিকেল, তাল, কাঠ ইত্যাদি উপাদানের বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু না হওয়া পর্যন্ত এগুলি আমদানীতে প্রযোজ্য সকল প্রকার শুল্ক-কর প্রত্যাহার করা। (৯) নারী উদ্যোক্তা পরিচালিত ক্ষুদ্র শিল্পসমূহ পোশাকে বিভিন্ন প্রকার ছাপ চিত্র প্রিণ্ট করে বাজারজাত করে। এসকল শিল্পের উপকরণ আমদানিতে প্রযোজ্য শুল্ক-কর শুধুমাত্র নারী উদ্যোদক্তা কর্তৃক আমদানির ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ মওকুফ করা।

অনুষ্ঠানটিতে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনডিসি এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সালাহউদ্দিন মাহমুদ। অনুষ্ঠানটিতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এসোসিয়েশন অব ফ্যাশন ডিজাইনার্স অব বাংলাদেশ এর প্রেসিডেন্ট মিসেস মানতাশা আহমেদ এবং সভাপতিত্ব করেন এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ সফিকুল ইসলাম।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, “ব্যাংক থেকে নারী উদ্যোক্তাদের ঋণ পাওয়ার বিষয়টি আরো সহজ এবং ঋণমালা ২৫ লক্ষ থেকে বাড়ানো প্রয়োজন। বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে জামানত বিহীন এ ঋণ বাড়ানোর ব্যাপারে নীতিমালা প্রনয়ন খুব আবশ্যক”।

 

 

নিউজ ডেস্ক, এসএমই ফাউন্ডেশন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here