নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ৭মাস মেয়াদি প্রকল্প শুরু

0

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের নামে শুরু হয়েছে নারী উদ্যোক্তাদের জন্য একটি ৭মাস মেয়াদি প্রকল্প ‘আনিসুল হক কোহর্ট ফর গ্রোথ অফ উইমেন অন্ট্রাপ্রেনিওরস’। আজ ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের এডুকেশন নেটওয়ার্ক বিল্ডিং-এর ৭১ মিলনায়তনে প্রকল্পের মূল কার্যক্রমের শুভ উদ্ভোধন করেন আনিসুল হক ফাউন্ডেশনের ফাউন্ডার এবং মোহাম্মদী গ্রুপের চেয়ারপারসন ড. রুবানা হক।

anisul hh

এক দশকের ব্যবধানে বাংলাদেশে নারী উদ্যোক্তাদের সংখ্যা বেড়েছে দ্বিগুণেরও বেশি। সরাসরি কিংবা অনলাইন দুই মাধ্যমেই বেড়েছে নারী উদ্যোক্তাদের উপস্থিতি। কিন্তু নারী হিসেবে ব্যবসা করা কিংবা ব্যবসা সম্প্রসারণ করার ক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত বাঁধাও বাড়ছে। যার ফলে ক্ষুদ্র অবস্থাতেই আটকে আছেন অনেক নারী উদ্যোক্তা। এসকল নারীদের উদ্যোগকে প্রসারিত করতে ‘আনিসুল হক ফাউন্ডেশন’, ‘বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক’ ও ‘চাকরি খুঁজব না চাকরি দেব’ যৌথভাবে শুরু করছে এই কার্যক্রম।

মূলত দেশের উদীয়মান নারী উদ্যোক্তাদের ব্যবসা বড় করার পরিকল্পনায় সহযোগিতা করা এ প্রকল্পের মূল লক্ষ্য। প্রকল্পের জন্য নারী উদ্যোক্তা নির্বাচনের কার্যক্রম গত ফেব্রুয়ারি মাসে শুরু হয়। মোট ১১৫ জন নারী উদ্যোক্তার আবেদন জমা পড়ে তার মধ্য থেকে ৩৪ জন নারী উদ্যোক্তাকে চূড়ান্তভাবে কোহর্ট সদস্য হিসেবে নির্বাচন করা হয় যাদের উদ্যোগের বয়স ২ বছর কিংবা অধিক এবং মাসিক রাজস্ব দেড় লাখ টাকার উপরে।

anisul h4

নির্বাচিতদের পুরো ৬ মাস ধরে নানারকম সেশনে রেখে দিকনির্দেশনা দেওয়া হবে। এইসব সেশনে নারী উদ্যোক্তারা তাদের ব্যবসার বৃদ্ধির বিভিন্ন দিক সম্পর্কে নিজেদের অভিজ্ঞতা বিনিময়ের পাশাপাশি নির্দেশনা ও প্রশিক্ষণ পাবেন।

উৎপাদন, বুটিক, খাবার, লেদার, পাটপণ্য, কারুশিল্প, আইটি, ই-কমার্স সহ বিভিন্ন পর্যায়ের নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে এই কোহর্ট আয়োজন করা হয়েছে। নির্বাচিত কোর্হট সদস্যরা হলেন- শাবাব লেদারের মাকসুদা খাতুন, সাত রঙ-এর ফারহানা ইয়াসমিন, এক্সট্রা মাইল এজ কেয়ার-এর তাসলিমা সুলতানা, একাত্তর সোর্সিং লিমিটেড এর জোৎস্না বেগম, তুলিকা ইকো লিমিটেড-এর ইসরাত জাহান, ফাইন ফেয়ার ক্র্যাফট এর মোছাঃ শাহান বেগম, আমরা পারি-এর হাফিজা আক্তার রানি, ট্যাম ক্রিয়েশন-এর তানহা আক্তার মুক্তা, শ্রদ্ধা-এর ফাহমিদা আহমেদ, এনেক্স লেদার-এর তাহমিনা আক্তার চমক, ক্যাফে শূন্য-এর হাসনাত জাহান, অনুভব বাই জেবা-এর তালুকদার জেবা জাহান, বিভি এসিস্ট্যান্ট-এর কুলসুম পপি, ওয়াসি ক্র্যাফট-এর আফসানা ইয়াসমিন (দিবা), ফ্রেন্ডস কনসাল্টেন্সি-এর শওকত আরা ফাতিমা, আশা ফুড-এর আসমা খাতুন, কারুশিল্প-এর তাহুরা বানু, ধবল-এর আসমা হক, এ আর ফিজিওথেরাপি সেন্টার-এর জেসমিন আক্তার, ফিউশন ফুড এন্ড জেরি কালেকশন-এর ইসরাত জাহান। বনানী, কেমকি বাংলাদেশ-এর সায়মা সাদিয়া, পারফেকশন অফ পরিণীতা-এর রওশন জাহান, পূর্ণতা ক্র্যাফট-এর সাবিহা ইসলাম বিথী, সিজনস বুটিকানো থেকে জান্নাত সুলতানা, প্রয়াস-এর নাসরিন জাহান সীমা, কাদম্বরি-এর রাজবি তাসনিম, বাঙালি ঊর্মি রহমান, বেস্ট এইড-এর শারমিন সোমা, সানট্রেন্ড-এর সানজিদা, রঙ্গিমা-এর রুবানা করিম, এআরবি ডিজাইন-এর এনি রহমান বৃষ্টি, আইক্লে-এর শিলা আক্তার, ডিএস ক্রিয়েশন সায়েদা ওয়াকিমুন্নেসা, ফারহানা’স ড্রিম-এর ফারহানা আক্তার লাকি, আইকনিক ক্রিয়েশনস-এর স্বর্ণা আক্তার।

anisul

আজকের আয়োজনে আরো উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাভিদুল হক, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান মোঃ সবুর খান, টেকনোহেভেন কোম্পানি লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক হাবিবুল্লাহ নেয়ামুল করিম, বে সাইড এনালিটিক্স-এর পরিচালক শওকত হোসাইন, বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক-এর সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান প্রমুখ।

প্রকল্পটির সহ-আয়োজক হিসেবে রয়েছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল বিশ্ববিদ্যালয়ের আনিসুল হক স্টাডি সেন্টার, ইনোভেশন এন্ড অন্ট্রোপ্রেনিওরশিপ ডিপার্টমেন্ট এবং মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে নাগরিক।

সেতু ইসরাত
উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here