Advertisement

দু’বছরে শিউলির কারুশৈলী সফলতার যাত্রা এক দিনে শুরু হয়নি। সুন্দর এই পথে হাটতে পাড়ি দিতে হয়েছে দীর্ঘ প্রস্তুতির সময়, উত্থানের গল্প আর সামাজিক প্রতিকূলতা তো বটেই! এতোসব গল্প হার মানে আজকের সফলতায়। কেননা আনোয়ারা আক্তার শিউলী আজ আর সেই সাধারন নারী নন, নিজের অবস্থানকে গড়ে নিয়েছেন একজন সফল উদ্যোক্তার পরিচয়ে।

সময়ের ব্যবধানে বিস্তৃত হয়েছে কর্মপরিসর, বেড়েছে কর্মী ও সহযোদ্ধাদের সংখ্যাও। কারুশৈলীর কর্মশৈলীতে হাসি ফুটেছে শত শত উদ্যোমী মানুষের মুখে। যারা কারুশৈলীর সহায়তায় ও প্রশিক্ষণে নিজেদেরকেও গড়ে চলেছেন প্রতিনিয়ত। এ যেন এক সফল গল্প থেকে শত শত কর্ম বলয়ের গল্পের সূচনা। দেশের আনাচে কানাচে একদিন কারুশৈলী তার কর্মবিস্তৃত করে আরো সুন্দর ও বলিষ্ঠ বলয় গড়ে তুলবে এটিই এখন সফল উদ্যোক্তা ও সংগঠক আনোয়ারা আকতার শিউলীর কারুশৈলীর লক্ষ্য।

কারুশৈলী কুটির শিল্প নারী উন্নয়ন সংগঠনের মূল কাজ হলো নতুন নতুন উদ্যোক্তা তৈরি করা। নারীরা কাজ শিখে ঘরে সীমাবদ্ধ থাকার উদ্দেশ্যে নয় বরং তারা কাজ শিখে কিভাবে পণ্য তৈরী ও বাজারজাত করে আয় করবে তার উপর। সে লক্ষ্যে নতুন একজন উদ্যোক্তার করণীয় কৌশলগুলো শিখিয়ে দেওয়ায় তাদের মূল লক্ষ্য।

আজ রাজধানীর মিরপুর আনসার ক্যাম্প এলাকায় কারুশৈলীর প্রধান শাখায় কারুশৈলী কুটির শিল্প নারী উন্নয়ন সংগঠনের ২ বছর পূর্তি উপলক্ষে সীমিত পরিসরে একটি আয়োজন করা হয়।

Advertisement

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনটির সভানেত্রী ও শাওন ক্রাফটের স্বত্বাধিকারী উদ্যোক্তা আনোয়ারা আক্তার শিউলী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন কারুশৈলী কুটির শিল্প নারী উন্নয়ন সংগঠনের প্রশিক্ষণার্থী, স্বনামধন্য উদ্যোক্তা এবং তরুণ উদ্যোক্তারা।

“আমাদের দেশের বেশিরভাগ নারী উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন কিন্তু তারা বিভিন্ন বাধার কারণে উদ্যোক্তা হতে পারেন না। ফলে আমাদের দেশে নারী উদ্যোক্তার সংখ্যা আশানুরূপ বৃদ্ধি পাচ্ছে না। ফলে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি সাধনে খুব বেশি ভূমিকা রাখতে সক্ষম হচ্ছেন না নারীরা। তাই সবার উচিৎ শুধু প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেই নয় তা বাস্তবায়নের মাধ্যমে সফল উদ্যোক্তা হয়ে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখা।” এমন তথ্যই উঠে আসে অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের বক্তব্যে।

সংগঠনটির সভানেত্রী ও শাওন ক্রাফটের স্বত্বাধিকারী সফল নারী উদ্যোক্তা আনোয়ারা আক্তার শিউলি বলেন, “আমি হয়তো বেগম রোকেয়া হতে পারবো না এবং কাউকে বেগম রোকেয়া তৈরিও করতেও পারবো না, কিন্তু যারা উদ্যোক্তা হতে চায় তাদেরকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে উদ্যোক্তা হতে সাহায্য করতে পারবো।“

অনুষ্ঠানটি আজ বিকেলে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা কর্মী ও তরুণ উদ্যোক্তাদের মাঝে ক্রেস্ট বিতরণের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা হয়।

ডেস্ক রিপোর্ট, উদ্যোক্তা বার্তা

Advertisement

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here