দেশজ ক্রাফটসের প্রথম বর্ষপূর্তিতে পণ্য প্রদর্শনী

0

‘আমার দেশ, আমার ঐতিহ্য’- শিরোনামে দেশজ ক্রাফটস এর উদ্যোগে শুরু হলো প্রথম প্রদর্শনী। বিজয়ের ৫০ বছর এবং দেশজ ক্রাফটস এর প্রথম বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে এই আয়োজন।

দেশজ ক্রাফটস দু দুবার অফলাইন মেলার আয়োজন করেছে, কিন্তু সিগনেচার আইটেম নিয়ে প্রদর্শনী এই প্রথমবার আয়োজন শুরু হলো। এতে তাদের সেরা ১০ জন উদ্যোক্তা তাদের সিগনেচার আইটেম নিয়ে এসেছেন।

প্রদর্শনী আজ ১৯ ডিসেম্বর শুরু হয়ে হলো চলবে আগামীকাল ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ধানমন্ডি ৪ নাম্বারে ২১/এ বাড়িতে সফিউদ্দিন শিল্পালয়ে এই প্রদর্শনী সকলের জন্য উম্মুক্ত।

deshoj

সেরা ১০ জন উদ্যোক্তার সিগনেচার আইটেম নিয়ে এই প্রদর্শনী প্রসঙ্গে উদ্যোক্তা ও আয়োজক নিশাত মাসফিকা জানান, “দেশীয় পন্যের প্রতি ভালোবাসা থেকেই আমাদের এই উদ্যোগ। দেশজ ক্রাফটস বরাবরই দেশীয় ঐতিহ্যকে প্রাধান্য দিয়েছে। আর তাই এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে আমরা আমাদের আরও প্রচার ও প্রসার চাই।”

এই প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া একজন উদ্যোক্তা অর্পিতা বড়ুয়া জানান “আমি একজন চিকিৎসক সেই সাথে সাথে একজন উদ্যোক্তা আমার উদ্যোগ ‘ঋষা’ যেখানে আমি হ্যান্ডপেইন্ট নিয়ে কাজ করছি। এ ধরনের প্রদর্শনী আমার পণ্যের প্রচারে ও প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে।”

deshojj

প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া উদ্যোক্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম স্বত্তাধিকারী “বাংলার সেলাই”। তিনি জানান “আমি একজন পুরুষ হয়ে নারীদের সেলাই নিয়ে কাজ করছি। আমার মায়ের কাছ থেকে শেখা এই কাজে আমি গর্বিত। আমার উদ্যোগে প্রচুর নারীরা কাজ করছেন।এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে আমার কাজগুলোকে মানুষের সামনে তুলে ধরতে পারবো।”

deshoj3

প্রদর্শনী তে অংশ নেয়া উদ্যোক্তা তারিন নাজ নীরা জানান, “আমার উদ্যোগ এর নাম ‘আবোল তাবোল’। নামটা একটু অন্যরকম। আমি মিনিয়েচার ঘর সাজানোর পণ্য নিয়ে কাজ করছি। মিনিয়েচার নিয়ে খুব কম উদ্যোক্তারাই কাজ করেন।তাই আমি চাই আমার পণ্য সম্পর্কে সবাই জানুক।”

এই প্রদর্শনীতে সবাই তাদের মূল্যবান মতামতের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রমকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে চান।

মাসুমা সুমি,
উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here