প্রায় অর্ধশত উদ্যোক্তাকে সঙ্গে নিয়ে আয়োজিত মেলার প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ শো কেস । আজ ৪ ফেব্রুয়ারী থেকে শুরু হয়ে ৬ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ধানমণ্ডি-১ এর ২২ নম্বর ভবনে চলবে মেলা।

এই মেলায় অংশ নিচ্ছেন দেশের খ্যাতিমান ডিজাইনার, উদ্যোক্তা এবং ঢাকার বাইরে থেকে আসা একদল নবীন ও ক্ষুদ্র উদোক্তারা। দেশজ পণ্যের সমাহারের সঙ্গে থাকছে দেশজ ভোজের আয়োজন। সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত মেলাটি উন্মুক্ত থাকবে সর্বসাধারণের জন্য। তবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মাথায় রেখে ‘নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ খুব সতর্কতার সঙ্গে অবলম্বন করা হবে।

bjashdjg

মেলায় প্রতিদিন ৩টা থেকে ৪টা পযর্ন্ত থাকছে বিশেষ কর্মশালা। উদ্যোক্তাদের দক্ষ করে তুলতে দেশজ এই কর্মশালার পরিকল্পনা। কর্মশালা পরিচালনা করবেন দক্ষ প্রশিক্ষকবৃন্দ।

প্রশিক্ষণের মধ্যে মেলার প্রথম দিনে থাকছে ‘কি করে ই কমার্স ব্যবসায় সফল হবেন’, দ্বিতীয় দিনে ‘কিভাবে অনলাইন ব্যবসা শুরু করবেন’ এবং তৃতীয় দিনে থাকছে ‘আন্তর্জাতিক ব্যবসার ধরন, গুরুত্ব, সুবিধা এবং অসুবিধা’।

রেইনড্রপস টেক লিমিটেডের অন্যতম উদ্যোগ দেশজ ক্রাফটসের প্রথম ইভেন্ট ‘বসন্ত মেলা’।

‘দেশজ ক্রাফটস-বিশ্বে দেশের ঐতিহ্য’ – এই স্লোগানকে ধারণ করে দেশজ ক্রাফটস প্ল্যাটফর্ম যাত্রা শুরু করেছে। দেশজ ক্রাফটস’র প্রধান নিশাত মাসফিকা বলেছেন, দেশীয় ঐতিহ্যকে বাঁচিয়ে তোলার প্রেরণায় এই উদ্যোগ। ইতোমধ্যে গত ২২ এবং ২৩ জানুয়ারি অনলাইনে উদ্যোক্তা প্রশিক্ষণের প্রথম কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এই কার্যক্রম নিয়মিত করা হবে বলে জানান তিনি।

ubsvgdfvsg

তিনি বলেন, বাংলাদেশের একটি অমূল্য সম্পদ হলো ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প। বিশ্বমানের এই সামগ্রী দেশের ঐতিহ্যকে ধারণ করে আছে দীর্ঘ সময় ধরে। ‘দেশজ ক্রাফটস’ তাদের ই-কমার্স প্লাটফর্মের মাধ্যমে দেশের অনাচে-কানাচে ছড়িয়ে থাকা ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পে নিয়োজিত মানুষের কাজ পৌঁছে দিতে চায় বিশ্বব্যাপী।

এর মাধ্যমে উদ্যোক্তারা নিজের পণ্যকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে শুধু দেশেই নয়, সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে পারবেন। ফলে তাদের পণ্যের যেমন বিকাশ ঘটবে, তেমনি তারা আর্থিকভাবেও লাভবান হবেন।

সাদিয়া সূচনা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here