উদ্যোক্তা- মোঃ সাঈদ পারভেজ

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার পিরিজপুর গ্রামে মোঃ ওয়ালিউল হোসেন এবং রেশমা বেগম দম্পতির ঘরে জন্ম নেয় ছেলে মোঃ সাঈদ পারভেজ। শৈশব থেকে কৈশোর পুরো সময়টায় কাটিয়েছেন নিজ গ্রামে। মাধ্যমিক দিয়েছেন মাটিকাটা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে। পরবর্তীতে তিনি এগ্রিকালচার ট্রেনিং ইনস্টিটিউট (এটিআই) ঈশ্বরদী থেকে ডিপ্লোমা করেন। এরপর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করে বেশ কিছু দিন কোম্পানিতে মার্কেটিং সেক্টরে চাকরি করেন।

sayeedd

‘স্বচ্ছলভাবে জীবন অতিবাহিত করলেও মন চাইত নিজেরই একটা প্রতিষ্ঠান থাকবে। যেখানে অসংখ্য অসহায় মানুষকে কাজ দিয়ে তাদের স্বচ্ছল করব’। এই ইচ্ছা মা-বাবাকে জানালেন সাঈদ পারভেজ। মা-বাবাও সন্তানের এমন ভালো উদ্যোগে খুশি হলেন। কাজ শুরু করতে ছেলেকে কিছু পুঁজি দিলেন মা। নিজের জমানো কিছু অর্থ একত্র করে শুরু করলেন স্বপ্নের উদ্যোগ। প্রতিষ্ঠানের নাম ‘একতা ইন্ডাস্ট্রিয়াল কোম্পানি’। তিনি মুড়ি উৎপন্ন করেন এবং গরু মোটাতাজাকরণের একটি ফার্ম আছে তার। ১০ লাখ টাকা পুঁজি এবং ৪ জন কর্মী নিয়ে মুড়ি উৎপাদন কার্যক্রমের যাত্রা শুরু করেন তিনি। তার মুড়ির নাম দেন ‘বরেন্দ্র মুড়ি’। অটো রাইসমিল থেকে চাল ক্রয় করে সেগুলো আয়োডিনযুক্ত লবণ পানিতে পরিষ্কার করে মুড়ি তৈরির মেশিনে দিলে রেডি মোঃ সাঈদ পারভেজের ‘বরেন্দ্র মুড়ি’।

অল্প সময়ের মধ্যেই তার পণ্যের গুনগত মান বিচার করে রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ অঞ্চলের প্রায় প্রতিটি উপজেলায় বরেন্দ্র মুড়ি পৌঁছে যাচ্ছে। এই দুই জেলা বাদেও দেশের বিভিন্ন স্থানে সাঈদ পারভেজের বরেন্দ্র মুড়ি যাচ্ছে এবং তিনি স্বল্প সময়ের মধ্যেই ব্যাপক সুনাম কুড়িয়েছেন। মাত্র চার মাসের ব্যবধানে ১০ লাখের পুঁজি আজ ২৫ লাখ টাকায় পৌঁছে গেছে। ৪ জন কর্মীর সঙ্গে আরো যুক্ত হয়েছেন ১৩ জন কর্মী। বর্তমানে ১৭ জন সহযোদ্ধাকে সঙ্গে নিয়ে সাঈদ পারভেজ তার প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন।

sayed1

উদ্যোক্তা বার্তাকে সাঈদ পারভেজ জানান, প্রতিটি কাজেই সফলতা সম্ভব যদি ইচ্ছা থাকে আর সে অনুযায়ী শ্রম দেওয়া যায়। আমি মন থেকেই চাইতাম নিজে স্বাবলম্বী হওয়ার পাশাপাশি আরো ১০ জনকে স্বাবলম্বী করবো। এই তীব্র ইচ্ছার সঙ্গে আমার ও সহযোদ্ধাদের শ্রম যোগ করে আমি এতদূর এসেছি। আমার মত যারা উদ্যোক্তা হতে চাচ্ছেন সেই তরুণ ভাই-বোনদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই- ‘আপনাদের পুঁজি কেমন তার ওপর ভিত্তি করে সর্বপ্রথম বাছাই করুন কি নিয়ে কাজ করবেন। বাছাই হয়ে গেলে পুঁজির সঙ্গে নিজের ইচ্ছাশক্তি, শ্রম দিয়ে সৎভাবে পরিচালনা করুন, সফলতা আসবেই’।

তামান্না ইমাম
রাজশাহী ডেস্ক, উদ্যোক্তা বার্তা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here