ধানপ্রকাশ

পনেরো হাজার টাকার চাকরি ছেড়ে ব্যবসায় মাত্র তিন মাসে সাড়ে পাঁচ লাখ রুপি লাভ করেন ধানপ্রকাশ শর্মা।

উত্তর প্রদেশের শামলিতে জন্মগ্রহণ করা ধানপ্রকাশ স্নাতক শেষ করেই একটি বেসরকারি চাকরিতে ১৫ হাজার টাকায় নিয়োজিত ছিলেন। কিন্তু ব্যবসায় তার নিজস্ব কিছু সাধনা আর দৃঢ় সংকল্প তাকে  চাকরিতে আটকে রাখতে পারে নি।

ধানপ্রকাশ সব সময় চেয়েছিলেন নিজেকে ব্যবসার সঙ্গে সম্পৃক্ত রাখতে। তাই তিনি চাকরি ছেড়ে ব্যবসায়িক কাজে মনোনিবেশ করেন।

চাকরি করার সময় তিনি কৃষকদের সমস্যা খুব কাছ থেকে দেখেছেন। তাদের জন্য কিছু করার ইচ্ছাও ছিল, তাই কৃষকদের জন্য কিছু করার সিদ্ধান্ত নেন।

পরে কৃষি সরঞ্জাম ও যন্ত্রপাতি বিষয়ে দুই মাসের একটি প্রশিক্ষণও গ্রহণ করেছিলেন।

২০১৫ সালে তিনি ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে ব্যবসা শুরু করেন। শুরুতে অল্প দামের কৃষি যন্ত্রপাতি তৈরি করেন এবং পরে বাজারের চাহিদা অনুযায়ী একটি মেশিন তৈরি করেন।

মেশিনটি কিছুদিনের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে এবং তিনি সাড়ে পাঁচ লাখ রুপি লাভ করেন। মেশিনটির দাম ছিলো এক হাজার থেকে তিন হাজার টাকা।

IMG 20190818 014740কিছুদিন পর ধানপ্রকাশ নতুন একটি স্প্রেয়ার আনেন যেটি ট্রাক্টরের সাথে ব্যবহার করা যায় এবং এর দাম ৩৬ হাজার টাকা। এটি খুব জনপ্রিয়তা লাভ করে এবং এখান থেকে প্রায় এক কোটি টাকা লাভ করেন।

বর্তমানে এই ব্যবসাটি প্রায় চারটি রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে এবং তিনি কৃষিতে নানা রকম প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ব্যবসায়ের সম্প্রসারণ করতে চান।

যে ধানপ্রকাশ ১৫ হাজার টাকার বেতনে কাজ করেছিলেন, তিনি এখন একজন সফল উদ্যোক্তা।

প্রত্যেকেই জীবনে সফল হতে চায়। তবে সবাই কঠোর পরিশ্রম ও দৃঢ় সংকল্পকে কাজে লাগাতে পারে না। যারা তাদের সকল  প্রতিবন্ধকতাকে পার করতে পারে এবং পরিশ্রম আর দৃঢ় সংকল্পকে ধরে রাখতে পারে। তারাই জীবনে সফলতা অর্জন করে। সেই সফলতা অর্জন করা একজন মানুষ হলেন ধানপ্রকাশ শর্মা।

হৃদয় সম্রাট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here