একদিন নিজের কাজ শেষে বাসায় ফিরছিলেন বাড্ডার বাসিন্দা সাহিদা পারভীন। হঠাৎ দেখলেন একটি বাড়ির সামনে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি। পরে কাছে গিয়ে জানতে পারলেন বাড়িটিতে আগুন লেগেছিলো। বাড়িটিতে থাকা ১১টি পরিবার আগুনের ভয়াল থাবায় সব হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গিয়েছে। ঘরে লাগা আগুন থেকে কিছুই বাঁচাতে পারেননি তারা। শিশু, যুবক, বৃদ্ধ সবাই পোড়া ঘরের পাশে বসে আহজারী করছেন। কি খাবেন, কনকনে ঠান্ডা থেকে বাঁচতে কোথায় থাকবেন এই ভাবনায় দিশেহারা ১১টি পরিবারের ৫০ জন সদস্য। কোটি মানুষের এই শহরে কেউ নেই তাদের পাশে দাঁড়ানোর মতো।

আগুনে সব হারানোর পরে পুরো একটি রাত খোলা আকাশের নিচে কাটে পরিবারগুলোর। সকাল হতে না হতেই একটু সহযোগীতার আশায় মানুষের কাছে হাত পেতেও কোনো লাভ হয়নি। কেউ ফিরেও তাকায়নি এই মানুষগুলোর দিকে। বিষয়টি ভাবি তোলে নারী উদ্যোক্তা সাহিদা পারভীনকে। বিবেকের তারণায় সম্বলহীন মানুষগুলো পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি।

bcvgdfre

চোখের পলকে আগুনের লেলিহান শিখায় নিঃস্ব হয়ে যাওয়া মানুষগুলো আহজারী দেখে নিজের চোখের পানি সামলাতে পারেন নি সাহিদা পারভীন। এই প্রতিবেদককে যখন কথাগুলো বলছিলেন তখন, নিজেকে সামলাতে না পেরে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

তিনি আরও বলেন, আমি বাসায় গিয়ে ঘুমাতে পারছিলাম না। পরে রাতে আমি আবার আগুনে পোড়া বাড়ির সামনে যাই। গিয়ে দেখি তারা কেউ ঘুমাতে পারছিলো না। সবাই রাস্তায় শুয়ে আছে। শীতের কারণে একজন আরেকজনকে জড়িয়ে ধরে শুয়ে আছে।আর ছোট শিশুরা মায়েরা আচলের নিচে মাকে জড়িয়ে ধরে শুয়ে আছে। এমন করুণ দৃশ্য দেখেছি যা বলে বুঝানো যাবে না।

ubcvgfh

উদ্যোক্তা সাহিদা পারভীন বলেন, আমি উদ্যোগ নিয়ে আমার আশেপাশের কয়েকজনের সহায়তা নিয়ে তাদের জন্য কিছু কম্বল, খাবার ও পুরনো কাপড় দিয়ে পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করলাম। যেহেতু পরিবারগুলো শিশুদের নিয়ে খোলা আকাশে নিচে থাকছে। তাই যত দ্রুত সম্ভব তাদের জন্য আয়োজন করা শুরু করলাম- যোগ করলেন সাহিদা। গত সোমবার (১৮ জানুয়ারি) থেকে টানা তিন দিন খাবারসহ বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় জিনিস দিয়ে সহযোগিতা করেন। তাদের দুঃখ-কষ্টগুলো নিজে ভাগ নিতে চেয়েছেন এ উদ্যেক্তা।।

uvcbgdf

উদ্যোক্তা সাহিদা পারভীন আরো বলেন, যারা আগুনে নিঃস্ব হয়েছিল। যে মানুষগুলো পরিশ্রম করে দিন এনে দিন খেতো। তাদের পাশে দাঁড়িয়ে মানষিকভাবে প্রশান্তি পেয়েছি। আমি সব সময় অসহায় মানুষের পাশে থাকতে চাই।
অসহায় মানুষদের জন্য সব সময় সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে চান বলে জানান সফল এই নারী উদ্যোক্তা।

মেহনাজ খান
উদ্যোক্তা বার্তা ঢাকা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here